লর্ডসের টিম ইন্ডিয়ার সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড৷ প্রথম ইনিংস এ ২৮৯ রানে এগিয়ে থেকে কোহলিদের দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানাল ইংল্যান্ড।

ভারতের  ১০৭ রানের জবাবে পাল্টা ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছিল ৬ উইকেটে ৩৫৭ রান তুলে৷ তার পর থেকে খেলতে নেমে ব্রিটিশরা ৭ উইকেটে ৩৯৬ রান তুলে প্রথম ইনিংস সমাপ্তি ঘোষণা করে৷ সুতরাং ইনিংস হার বাঁচাতে ভারতকে দ্বিতীয় ইনিংস অন্তত পক্ষে ২৮৯ রান তুলতেই হবে৷

জনি বেয়ারস্টো (৯৩) অল্পের জন্য শতরান হাতছাড়া করেন৷ তবে ব্যক্তিগত সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছিলেন ক্রিস ওকস৷ তৃতীয় দিনের শেষে ওকস ১২০ ও স্যাম কুরান ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন৷ চতুর্থ দিনের শুরু থেকেই আগ্রাসী মেজাজে ব্যাটিং করেন গত দিনের দুই অপরাজিত তারকা৷

কুরান  পাঁচটি চার ও একটি ছক্কার সাহায্যে ৪৯ বলে ৪০ রান করে পান্ডিয়ার বলে আউট হতেই ইংল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংস ডিক্লেয়ার করে৷ ক্রিস ওকস শেষমেশ ব্যক্তিগত ১৩৭ রানে অপরাজিত থেকে যান৷ ১৭৭ বলের ইনিংসে তিনি ২১টি বাউন্ডারি মেরেছেন৷

ভারতের হয়ে প্রথম ইনিংসে তিনটি করে উইকেট নেন মহম্মদ শামি ও হার্দিক পান্ডিয়া৷ একটি উইকেট ইশান্ত শর্মার৷ দুই স্পিনার অশ্বিন ও কুলদীপ সাকুল্যে ২৬ ওভার বল করে ১১২ রান খরচ করলেও কোনও উইকেট তুলতে পারেননি৷

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ভারত শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে৷ মাত্র ১৩ রানের মধ্যে দুই ওপেনার মুরলি বিজয় ও লোকেশ রাহুলের উইকেট হারিয়ে বসে তারা৷ বিজয় খাতা খোলার আগেই বেয়ারস্টোর দস্তানায় ধরা পড়েন৷ লোকেশ ১০ রান করে এলবিডব্লু হন৷ দু’জনকেই ফিরিয়ে দিয়েছেন অ্যান্ডারসন৷

বৃষ্টিতে  খেলা সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যাওয়ার সময় ভারত ২ উইকেট হারিয়ে ১৭ রান তুলেছে৷ রাহানেকে নিয়ে লড়াই চালাচ্ছেন পূজারা৷ প্রকৃতি বিরূপ হলে লর্ডসে চতুর্থ দিনের মধ্যাহ্নভোজের বিরতি এগিয়ে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷

Share