ত্বক ভাল রাখার প্রথম ধাপই হল ক্লিনজিং বা পরিষ্কার করা। আলস্যের কারণে বা সময়ের অভাবে অনেকেই শুধু জলের ঝাপটা দিয়েই মুখ ধুয়ে নেন। কিন্তু, ত্বক দূষণমূক্ত রাখতে রাখতে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় কাজ কিন্তু ক্লিনজিং। আর যদি অ্যাকনে, পিগমেন্টেশন, বলিরেখা থেকে ত্বক দূরে রাখতে চান তা হলে অবশ্যই করুন ডাবল ক্লিনজিং।

ডাবল ক্লিনজিং কী?

অনেক বিউটি রুটিনের নাম শুনে বোঝা না গেলেও ডাবল ক্লিনজিং-এর মানে বোঝা খুবই সহজ। একের বেশি প্রোডাক্ট দিয়ে দু’বার ত্বক পরিষ্কার করাই হল ডাবল ক্লিনজিং।

কী ভাবে করবেন ডবল ক্লিনজিং

ডবল ক্লিনজিং-এর প্রথম ধাপ হল রিমুভারের সাহায্যে মেকআপ তুলে ফেলা। ওয়াইপসের সাহায্যে নয়। তেল বা বাম রিমুভার হিসেবে খুব ভাল। এর পর কোনও জেল বা ক্রিমি ফেস ক্লিনার ও জল দিয়ে মুখ ভাল করে ধুয়ে ফেলুন।

কখন করবেন ডাবল ক্লিনজ?

সকাল, সন্ধ্যা দুই সময়ের জন্যই ডাবল ক্লিনজিং উপকারী। যে হেতু ত্বকের রোমকূপে ধুলো, বালি ময়লা জমে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে, তাই ডাবল ক্লিনজিং নিয়মিত রুটিনের অংশ করে ফেলুন।
কী ভাবে কাজ করে ডাবল ক্লিনজিং

ডাবল ক্লিনজিং ত্বকের রোমকূপের গভীরে গিয়ে পরিষ্কার করে। যা অ্যাকনের সমস্যা দূর করে। ত্বক আরও উজ্জ্বল দেখায়। ডাবল ক্লিনজিং-এর ফলে যে কোনও প্রোডাক্ট যেমন ক্রিম, সিরাম, ফেসিয়াল অয়েল অনেক ভাল ভাবে শোষিত হয়।

Share