রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে চলে গিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। চমক জাগানো সে দলবদলের মাঝেও কাটা হয়েছিল স্প্যানিশ কর কর্তৃপক্ষ। রোনালদো স্পেন ছাড়লেও তারা যে রোনালদোকে ছাড়বে না, সে হুমকি তখনই দিয়ে রেখেছিল সংস্থাটি। কর ফাঁকির মামলায় জেল জরিমানার ভয় গত দেড় বছর ধরেই পাচ্ছিলেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

স্প্যানিশ সংবাদ সংস্থা ইএফইকে জানানো হয়েছে, রোনালদোর সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে স্প্যানিশ কর্তৃপক্ষের। ৪টি ভিন্ন অপরাধে নিজের দায় স্বীকার করে নিয়েছেন জুভেন্টাসের নতুন গোল ভরসা। ১৯ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা (১৮৭ কোটি ১৪ লাখ টাকা)ও দুই বছরের স্থগিত জেলের শাস্তি মেনে নিয়েছেন রোনালদো। স্পেনের আইন অনুযায়ী দুই বছর বা কম সময়ের প্রথম শাস্তিতে জেলে যেতে হয় না।

ইএফই জানিয়েছেন, জেলের শাস্তি থেকে বাঁচার জন্য দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন রোনালদো। ২০১৭ সালের জুনে পর্তুগিজ অধিনায়কের বিরুদ্ধে ছবি স্বত্ব থেকে প্রাপ্ত অর্থের তথ্য গোপনের অভিযোগ তোলে স্প্যানিশ কর কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি তথ্য গোপন করে ১৪.৮ মিলিয়ন ইউরো কর দেননি রোনালদো। ২০১১ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ছবি স্বত্ব থেকে পাওয়া অর্থেই এ কাজটা করেছেন বলে জানানো হয়েছিল। এখন জরিমানা হিসেবে ১৯ মিলিয়ন ইউরো দিতে রাজি হয়েছেন রোনালদো।

তবে এ শাস্তিতেও রোনালদো পার পাবেন কি না এটা এখনো নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। কারণ, এ সমঝোতার অঙ্কটা গ্রহণ করা হবে কি হবে না, সে সিদ্ধান্ত নেবে স্পেনের অভ্যন্তরীণ রাজস্ব বিভাগ। তারা এ অঙ্কে খুশি হলেই কেবল দায় থেকে মুক্তি মিলবে গত দুই বছরের বর্ষসেরা ফুটবলারের।

Share