‘যে দেশ থেকে ইরানের ওপর হামলা হবে সেই দেশেও আক্রমণ হবে’

যে দেশের ভূমি থেকেই ইরানের ওপর হামলা চালানো হবে সেই দেশের ওপরও আক্রমণ চালানো হবে বলে হুঁশিয়ারি করেছে ইরান।

জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এক ডজনেরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ইরাকের দুটি মার্কিন ঘাঁটি লক্ষ করে। এতে ৮০ জন মার্কিন সেনা নিহত হয়েছে বলে দাবি করছে ইরান।
বুধবার ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘যদি আবার কোনো ‘শয়তানি’ করা হয় কিংবা কোনো আগ্রাসন বা উসকানি চালানোর চেষ্টা করা হয় তাহলে ওয়াশিংটনকে এর চেয়ে ‘বেদনাদায়ক’ ও ‘বিপর্যয়কর’ জবাব দেয়া হবে।

এখানেই থেকে থাকেনি ইরান। আমেরিকার যেসব মিত্র দেশ তাদের ঘাঁটিগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দিয়েছে তাদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে এরপর বলা হয়, যে দেশের ভূমি থেকেই ইরানের ওপর হামলা চালানো হবে সেই দেশেরে ওপরও আক্রমণ চালানো হবে।

ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার অপরাধে ইহুদিবাদী ইজরায়েলকেও ইরান আমেরিকার মতো সমান অপরাধী বলে গণ্য করে। বিবৃতিতে এর চেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আগে মধ্যপ্রাচ্য থেকে নিজেদের সেনা প্রত্যাহার করে নেয়ার জন্য আমেরিকার জনগণের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *