দৃশ্য-৩২
ফুপার বাড়ি ড্রইং/দিন
রফিক সাহেব/ রাজন
দরজা খুলতেই রাজন রুমে প্রবেশ করবে।
রফিক : টাকা ম্যানেজ করতে পেরেছ।
রাজন : জী কএকজনের সাথে কথা হয়েছে দিবে
বলেছে।
রফিক : একটু বস আমি আসছি।
রাজন : বসে অপেক্ষা করবে। রফিক সাবে কিছুক্ষন পর
টাকা হাতে ফিরে আসবে।
রফিক : এই নাও আমার কাছেও বেশি নেই। আজই ভাড়া পেয়েছি তোমর জন্য আলাদা করে রেখেছি।
রাজন : আমার অনেক উপকার করলেন।
রফিক : পুরো পুরি করতে পারলাম কোথায়। তবে টাকা
পয়সা দিতে হলে বুঝে শুনে দিও…
রাজনা : জী আসি..
রফিক : আচ্ছা..
রাজনের প্রস্থান
কাট

দৃশ্য-৩৩
সুমনার বেড/রাত
সুমনা, রাজন
দুজনে ঘুমিয়ে ছিলো,
সুমনা হঠাৎ উঠে বসে পরবে।
দরজা ভাঙ্গার শব্দ পাবে।
ভয়ে ভয়ে উঠে ফ্রেম আউট হবে।
কাট টু

দৃশ্য-৩৪
শিড়ী/রাত
সুমনা, গনেষ।
ছায়ার মত দেখা যাবে শিড়ীতে দাড়িয়ে গনেষ একটি লোহার দন্ড দিয়ে দরজা ভাঙ্গার চেষ্টা করছে।
কাট টু

দৃশ্য-৩৫
ড্রইংরুম/রাত
সুমনা, গনেষ।
সুমনা পা টিপে টিপে দরজার কাছে আসবে, তার চখে মুখে ভিতি।
সে দরাজা খুলেই দেখবে।
গনেষ রড হাতে দাড়িয়ে আছে।
তাকে দেখে রহস্য জনক হাসি হাসবে ।
লোহার দন্ড তুলে সুমনার মাথায় বাড়ি দিবে।
সুমনা চিৎকার করে উঠবে।
কাট

দৃশ্য-৩৬
সুমনার বেড/দিন
সুমনা,
হঠাৎ উঠে বসবে, স্বপ্ন দেখছিল।
সুমনা চাদর মুরি দিয়ে শুয়ে ছিলো তাকে অসুস্ত লাগবে।
বিছানা থেকে উঠে।
খাটের নিচে তাকাবে।
টাকা গুলো আছে কিনা দেখবে।
কাট